Movement Pass Registration BD Just in 2 Minutes – Totally Free – Save Yourself From Police

Movement Pass Registration

Movement Pass Registration করার আগে চলুন দেখে নেওয়া যাক, মুভমেন্ট পাস মূলত কি।
আর সেটা কেনই বা দরকার।

মুভমেন্ট পাস হচ্ছে একটি আবেদন পত্র, যার ফলে কেউ ঘরের বাহিরে গেলে পূর্ব অনুমতি পত্রের ন্যায়।
সমগ্র বিশ্ব জোড়ে COVID-19 এর প্রভাব চলছে, ফলে পৃথিবীর প্রায় সকল মানুষ গৃহ বন্ধী হয়ে পরেছে।

কিন্তু মানুষের দৈনন্দিন চাহিদা পূরনের জন্য ঘরে বসে থাকলে সেটা পূরণ হচ্ছে না। ফলে যাওয়া লাগছে ঘরের বাহিরে জীবিকা অর্জন সহ নানান কাজে।

তবে সবাইকে নিজের সুরক্ষা বজায় রেখে চলার জন্য রাষ্ট্রীয় ভাবে নানান বিধি বিধান আরোপ করা হয়েছে। তন্মধ্যে একটি হচ্ছে Movement Pass.

Movement Pass Registration করতে হলে আপনাকে বেশ কিছু সহজ ধাপ অনুসরণ করতে হবে। তাহলেই আপনি মাত্র কয়েক মিনিটে ঘরে বসে বাহিরে যাওয়ার অনুমতি পত্র হয়ে যাবেন।

Movement Pass হাতে পাওয়ার পরেও বেশ কিছু কাজ করতে হবে যা শেষে উল্লেখ করা হয়েছে।

করোনাকালীন সময়ে ঘরে বসেই ব্যাংকিং করুন ইসলামি ব্যাংকের সেলফিন অ্যাপে! 

Movement Pass Registration Process :

প্রথমেই আপনার ফোন বা ল্যাপটপ/ডেক্সটপ কম্পিউটার থেকে এই লিঙ্ক এ প্রবেশ করুন।
অথবা গুগলে সার্চ করুন “Movement Pass Registration” লিখে।
তাহলে প্রথমে যে পেজটা আসবে সেটাতে ক্লিক করলে আপনি উক্ত সাইটে প্রবেশ করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটটি তে প্রবেশ করার পর নিচের ছবির মত পেজ দেখতে পাবেন;

Movement pass bd registration

এবার “রেজিস্ট্রেশান” বাটনে ট্যাপ করুন। এখান একটি ফর্ম আপনার সামনে ওপেন হবে।

ফর্মে যা যা তথ্য দিবেন;

  1. আপনার নাম লিখুন; অবশ্যই আপনার এনআইডি/পাসপোর্ট/ ড্রাইভিং লাইসেন্স/ জন্ম নিবন্ধন/ চাকরীর কার্ডের সাথে মিল রেখে নাম লিখবেন।
  2. আপনার একটি সক্রিয় মোবাইল নাম্বার দিন।
  3. আপনার জেলা নির্বাচন করুন।
  4. আপনার থানা/ উপজেলা নির্বাচন করুন।
  5. আপনার লিঙ্গ নির্বাচন করুন।
  6. আপনার জন্ম তারিখ টি নির্বাচন করুন; অবশ্যই আপনার এনআইডি/পাসপোর্ট/ ড্রাইভিং লাইসেন্স/ জন্ম নিবন্ধন/ চাকরীর কার্ডের সাথে মিল রেখে জন্ম তারিখ নির্বাচন করুন।
    পর্বরতীতে সেটি দরকার পরবে।
  7. আপনার কাছে কোন ধরনের আইডি রয়েছে সেটি নির্বাচন করুন; যেমনঃ এনআইডি/ পাসপোর্ট ইত্যাদি।
  8. আপনার আঈডি নাম্বার টি লিখুন; যেমনঃ আমার ক্ষেত্রে এনআইডি কার্ড এর নাম্বার লিখেছি।
  9. আপনি একটি ছবি আপলোড করুন; সেটার ফরম্যাট যেন JPEG/PNG হয়, আর অবশ্যই ৮০০ কেবি র বেশী যেন না হয়।
  10. গুগল ভেরিফিকেশনের জন্য রিক্যাপচা পূরণ করুন।

সকল তথ্য সঠিক থাকলে “জমা দিন” বাটনে ট্যাপ করুন।

আপনার রেজিস্ট্রেশান কমপ্লিট হয়েছে। আপনি চাইলে এখন Movement Pass এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

Movement Pass Registration শেষে পাসের জন্য আবেদনঃ

যেহেতু আপনার Movement Pass Registration সম্পূর্ণ হয়েছে, তাই আপনাকে এখন আবেদন করতে হবে কোথা থেকে কোথায় যাবেন।

Movement pass bd

উপরের মেনু থেকে “লগইন” এ ট্যাপ করলে আপনি লগইন পেজ দেখতে পাবেন।

বলে রাখা ভালো আপনি কিন্তু রেজিস্ট্রেশান করার সময় কোনো প্রকার পাসওয়ার্ড বা পাসকোড ব্যবহার করেন নি। 
তবে আপনি যেই জন্ম তারিখ ব্যবহার করেছিলেন সেটিই আপনার পাসওয়ার্ড/পাসকোড হিসেবে কাজ করবে। 
  1. আপনার ফোন নাম্বারটি দিন;
  2. আপনার জন্ম তারিখ টি লিখুন; যেমনঃ আপনার জন্ম তারিখ যদি 01-03-1999 হয়ে থাক, তাহলে লিখুন; 01031999
    অর্থাৎ আপনার জন্ম তারিখটি লিখবেন কোনো প্রকার স্পেস বা হাইফেন ছাড়া।
  3. গুগল ক্যাপটা টি পূরণ করুন।
  4. “লগইন করুন” এ ট্যাপ করে লগইন করুন।
  5. “পাসের আবেদন” এ ট্যাপ করুন।
  6. কোথা থেকে যাবেন সেটা লিখুন; যেমনঃ গ্রামঃ xxxxxxx, ইউনিয়নঃxxxxxx, পোস্ট অফিসঃ xxxxxxx এটুকু ছাড়াও আপনি আপনার “যাওয়ার” স্থানটি সম্পুর্ন ভাবে লিখতে পারেন।
  7. কোথায় যাবেন সেটি উল্লেখ করুন। যেমনঃ আমি Dhaka Bank Kishoreganj Branch এ যাবো, তাই সেটি লিখেছি। আপনি আপনার গন্তব্য লিখুন।
  8. আপনার গন্তব্যের স্থানটি কোন জেলায় অবস্থিত সেটি নির্বাচন করুন।
  9. আপনার গন্তব্যের স্থানটি কোন ঊপজেলায় অবস্থিত সেটি নির্বাচন করুন।
  10. কত তারিখ এবং কয়টার সময় বের হবেন সেটি নির্বাচন করুন।
  1. কত ঘন্টা সময় লাগতে পারে আপনার কাজের জন্য, সেটি নির্ধারন করুন।
  2. মুভমেন্টের ধরন কি সেটি নির্ধারন করুন; যেমনঃ যাওয়া নাকি যাওয়া আসা।
  3. আপনি যে কারনে পাস এর জন্য আবেদন করছেন সেটি নির্ধারন করুন। যদি আপনার পাসের কারন খোজে না পেয়ে থাকেন, তাহলে “অন্যান্য” নির্বাচন করুন এবং সেটির বিবরণ লিখুন।
  4. শর্তাবলীতে টিক মার্ক দিন।
  5. “জমা দিন” এ ট্যাপ করুন।

Movement pass registration bangladesh

আপনার আবেদন সফল হয়েছে, আপনাকে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে অনুমতি পাওয়ার জন্য। আপনি ১০ মিনিট পরে আপনার আবেদন টি দেখতে/ডাউনলোড করতে পারবেন।

১০ মিনিট পরে “দেখুন” বাটনে ট্যাপ করুন তাহলে আপনাকে ডাউনলোড করার অপশন দেওয়া হবে।
সেখান থেকে “ডাউনলোড” বাটনে ক্লিক করার পরে নিন্মুক্ত “Movement Pass” টির মত আপনার “Movement Pass” টি দেখতে পারবেন।

এবার সেটি আপনার ফোনের স্টোরেজে সেভ হয়ে থাকবে, আপনি চাইলে সেটি প্রিন্ট করতে পারেন অবথা ফোনেও রেখে দিতে পারেন।

Movement Pass Registration নিয়ে কিছু প্রশ্নোত্তরঃ

আমি কি অগ্রিম পাস ইস্যু করতে পারবো?

উত্তরঃ একদিনে আপনি মাত্র একটিমাত্র পাস ইস্যু করতে পারবেন। সেটি ঐদিনের জন্য হতে পারে বা অন্য যে কোনো নির্দিষ্ট তারিখের হতে পারে।

Movement Pass Registration কি প্রিন্ট করে সাথে রাখতে হবে?

উত্তরঃ না। পাসটি যার নামে ইস্যু হয়েছে শুধুমাত্র সেই ব্যক্তিই উক্ত পাশ দিয়ে চলাচল করতে পারবেন। তবে কেউ ড্রাইভারসহ গাড়ি নিয়ে বের হতে চাইলে আবেদনের সময় ড্রাইভারের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা সাপেক্ষে তার পাসটি সংশ্লিষ্ট ড্রাইভারও ব্যবহার করতে পারবে।‌ তবে সেক্ষেত্রে ড্রাইভারের কাছে অবশ্যই পাশের একটি কপি ও ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকতে হবে।

আমি কি শুধুমাত্র Movement Pass Registration যাতায়াত করতে পারবো?

উত্তরঃ না। মুভমেন্ট পাশের সাথে আপনাকে অবশ্যই ফর্মে প্রদানকৃত মোবাইল নম্বর এবং পরিচয়পত্রটি সাথে রাখতে হবে। অন্যথায় মুভমেন্ট পাসটি অকার্যকর বলে বিবেচিত হবে।

একটি পাস কি একাধিকবার ব্যবহার করতে পারবো?

উত্তরঃ না। পাসটি যার নামে ইস্যু হয়েছে শুধুমাত্র সেই ব্যক্তিই উক্ত পাশ দিয়ে চলাচল করতে পারবেন। তবে কেউ ড্রাইভারসহ গাড়ি নিয়ে বের হতে চাইলে আবেদনের সময় ড্রাইভারের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা সাপেক্ষে তার পাসটি সংশ্লিষ্ট ড্রাইভারও ব্যবহার করতে পারবে।‌ তবে সেক্ষেত্রে ড্রাইভারের কাছে অবশ্যই পাশের একটি কপি ও ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকতে হবে।

আমি কি গাড়ি নিয়ে বের হতে পারবো?

উত্তরঃ হ্যাঁ। আপনি গাড়ি নিয়ে বের হতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে পাসের জন্য আবেদনের সময় নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ির নাম্বার প্রবেশ করাতে হবে। ড্রাইভারসহ বের হলে ফর্মের নির্দিষ্ট অংশে ড্রাইভারের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করতে হবে।

You May Also Like

About the Author: infotalkbdcom

Leave a Reply

Your email address will not be published.